একই আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিলেন বিএনপির আমানউল্লাহ আমান ও তার ছেলে

ঢাকা-২ আসনে প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন বিএনপির প্রার্থী আমানউল্লাহ আমান ও তার ছেলে ব্যারিস্টার ইরফান ইবনে আমান অমি। আজ বুধবার (২৮ নভেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে ঢাকা জেলা প্রশাসক ও রিটার্নিং অফিসার আবু ছালেহ মোহাম্মদ ফেরদৌস খানের হাতে আনুষ্ঠানিকভাবে তারা মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। আমানউল্লাহ আমান কোনও কারণে নির্বাচনে অংশ নিতে না পারলে তার ছেলে যাতে নির্বাচনে অংশ নিতে পারেন সেজন্য দুজনই মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

আমানউল্লাহ আমান এ বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘সরকার সারা দেশেই বিএনপির জনপ্রিয় প্রার্থীদের গ্রেফতার করে এবং আদালতকে ব্যবহার করে তাদের নির্বাচন থেকে দূরে রাখার অপচেষ্টা চালাচ্ছে। হাইকোর্টে আমার আপিল খারিজ হয়ে যায়। আমি আইনি লড়াই চালিয়ে যাবো। যদি কোনও কারণে আমি নির্বাচন করতে না পারি তাহলে আমার পরিবর্তে আমার ছেলে ব্যারিস্টার ইরফান ইবনে আমান অমি এই আসন থেকে নির্বাচন করবে।’ বাবা-ছেলের মনোনয়নপত্র দাখিলের সময় উপস্থিত ছিলেন কেরানীগঞ্জ মডেল উপজেলা বিএনপির সভাপতি মনির হোসেন মিনু, সাধারণ সম্পাদক হাসমত উল্লাহ নবী, সাংগঠনিক সম্পাদক মোজাম্মেল হোসেন, দফতর সম্পাদক নাজিম উদ্দিন নাজিম, মোসলে উদ্দিন ফারুকী, ঢাকা জেলা যুবদলের আহ্বায়ক ভিপি নাজিম, কৃষক দল নেতা হাজী মো. বাবুল প্রমুখ। কেরানীগঞ্জ মডেল উপজেলা বিএনপির সভাপতি মনির হোসেন মিনু বলেন, ‘ঢাকা-২ আসন বিএনপির শক্ত ঘাঁটি। আমানউল্লাহ আমান এই আসনে জনপ্রিয় প্রার্থী। নির্বাচন থেকে দূরে রাখতে তার বিরুদ্ধে নানা ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে।’

এছাড়া ঢাকা-৩ আসনের প্রার্থী বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ঢাকা জেলা প্রশাসকের কাছে তার মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। এ সময় তার সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও কৃষক দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি হাজী নাজিম উদ্দিন, দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মোজাদ্দেদ আলী বাবু ও দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানা যুবদলের সভাপতি মোকাররম হোসেন সাজ্জাদ প্রমুখ।